সূর্যপৃষ্ঠের বিস্ময়কর ছবি!

সূর্যপৃষ্ঠের বিস্ময়কর ছবি!

উত্তরদক্ষিণ অনলাইন ।০১ ফেব্রুয়ারী ২০২০ । আপডেট ১৭ঃ৩৪

ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সূর্যের উপরিভাগের বিস্তারিত ছবি তুলতে সক্ষম হয়েছেন বিজ্ঞানীরা! উত্তপ্ত এই নক্ষত্রের উপরিভাগে টেক্সাসের মতো আয়তনের একেকটি বিশাল প্লাজমা এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যাচ্ছে, এমনটাই দেখা যাচ্ছে ওই ছবিতে। হাওয়াইয়ের ডেনিয়েল কে. ইনোয়ে সোলার টেলিস্কোপে ধরা পড়া এই ছবি সূর্যকে নিয়ে গবেষণার নতুন পথ খুলে দিলো। এই ছবির মাধ্যমে জ্যোতির্বিদরা সূর্যের উপরিভাগ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। এছাড়া এই তথ্য পৃথিবীর প্রযুক্তিতে এক বিরাট ভূমিকা রাখতে পারে। পাওয়ার গ্রিড, স্যাটেলাইট কমিউনিকেশনের ওপর প্রভাব ফেলবে এই তথ্য। আর এই ইনোয়ে সোলার টেলিস্কোপ ও সূর্যকে পর্যবেক্ষণ করা স্যাটেলাইট আমাদের প্রযুক্তিগতভাবে আরো নির্ভুল হতে সহায়তা করবে বলেই বিজ্ঞানীরা আশা করছেন। নতুন পাওয়া এই ছবির মাধ্যমে জানা গেছে সূর্যের উপরিভাগ আসলে আলাদা আলাদা খণ্ড, যেগুলোর একেকটির আয়তন আমেরিকার টেক্সাসের সমান। সূর্যের অভ্যন্তরের প্রচন্ড উত্তাপ এসব খণ্ডের মধ্য দিয়েই বের হয়ে আসে। দ্য ইনোয়ে সোলার টেলিস্কোপের পরিচালক ফ্রান্স কর্ডোভা বলেছেন, এই ছবির কল্যাণে সূর্যের ম্যাগনেটিক ফিল্ড এর মানচিত্র তৈরির কাজ করতে চান তারা, যেখান থেকে সূর্যের বিশাল সব আগুনের ফুলকি বের হয়, যা পৃথিবীর ওপরও প্রভাব ফেলে। আর এই টেলিস্কোপের মাধ্যমে সূর্যের ঝড় ও মহাকাশের আবহাওয়া সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পাবেন বলেও আশা করছেন বিজ্ঞানীরা। পৃথিবীতে কোন দেশে কখন বৃষ্টি হবে, তা মোটামুটি ভালো ভাবে আগে থেকে জানাতে পারলেও এখন পর্যন্ত মহাকাশে কোথায় কেমন আবহাওয়া হবে, তা জানাতে পারছেন না বিজ্ঞানীরা। সূর্যপৃষ্ঠ নিয়ে গবেষণা করে বিশেষ এই টেলিস্কোপটি সেই লক্ষ্যেই কাজ করবে। এতে করে ভবিষ্যতে মহাকাশে প্রতিকূল আবহাওয়া সৃষ্টি হলে ৪৮ মিনিট থেকে ৪৮ ঘণ্টা আগে তা মানুষকে জানাতে পারবে এই টেলিস্কোপ। এতে করে পাওয়ার গ্রিড, গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও স্যাটেলাইট সুরক্ষা করা সহজ হবে। আগামী ৬ মাস ধরে ইনোয়ে টেলিস্কোপের সাথে জড়িত বিজ্ঞানী ও গবেষকরা আরো বিশদ গবেষণা চালিয়ে যাবেন।

enghillol

Leave a Reply