ফোনের ব্যাকআপ নেয় যে চার্জার

ফোনের ব্যাকআপ নেয় যে চার্জার

স্মার্টফোন হারিয়ে গেলে শুধু যে একটি ফোন হারায় ব্যাপারটা সেখানেই সীমাবদ্ধ না। আসলে একটি ফোনের সাথে হারিয়ে যায় অনেক স্মৃতি এবং দরকারি তথ্যও। এটা জানার পরেও আমরা আলসেমির কারণে ফোনের ব্যাকআপ নিই না।

কেউ হয়তো অলসতার কারণে ব্যাপআপ নেয় না, কেউ নেয় না কিভাবে নিতে হয় সেটা না জানার কারণে। আবার আরেক শ্রেনী আছে ব্যাকআপ নেয়ার মতো ধৈর্য্য নাই বলে ব্যাকআপ নেয় না।

সাধারণত যারা অহরহ ছবি তুলে থাকেন, তাদের ছবির প্রতি আলাদা দুর্বলতা থাকে। ফলে ফোন হারিয়ে গেলে যদি ক্লাউড বা অন্য কোথাও ব্যাকআপ না থাকে তো হারিয়ে গেল সব কিছুই। তাছাড়া সাধারণ মানুষের কতজনই বা ক্লাউড ব্যাকআপের ব্যাপারে জানে?

সুতরাং সবচেয়ে সহজ এবং চমকপ্রদ ব্যাপার হচ্ছে কোনো কিছু না করেই, বা কোনো পরিশ্রম বা আলাদা কোনো মনোযোগ না দিয়েও যদি ব্যাকআপ রাখা যায় তো মন্দ কী?

হ্যাঁ, এমন মানুষদের জন্য সুখবর নিয়ে এলো টক ফটো কিউব নামের চার্জার। এই ডিভাইসে ইন্টারনাল মেমোরি ৬৪ জিবি। আপনি যখনই আপনার মোবাইল ফোনে এই চার্জারের মাধ্যমে চার্জ দিবেন এটা অটোমেটিকলি আপনার স্মার্টফোনের ছবি, ভিডিও, কন্টাক্টস, ডকুমেন্টস এবং ক্যালেন্ডারের ব্যাকআপ নিয়ে নেবে।

এখন প্রশ্ন হলো আপনি যদি মাত্র ১০ মিনিটের জন্য চার্জে রাখেন, তখন কি হবে? হ্যাঁ, এটা আবার যখন আপনি চার্জে দিবেন বাকিটুকু তখন নিয়ে নেবে। অর্থাৎ এটা যতক্ষণ আপনার মোবাইলকে সংস্পর্শে পাবে ততক্ষণ ব্যাকআপ নিতে থাকবে। এটাতে টাইপ সি পোর্ট এবং মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট আছে। আর যদি এর ৬৪ জিবি পূর্ণ হয়ে যায় চাইলে আপনি সেটার ব্যাকআপ কম্পিউটারে নিয়ে রেখে আবার নতুন করে নিতে পারেন অথবা নতুন মেমোরি কার্ড কিনে ব্যবহার করতে পারবেন।

সুতরাং এখন ফোন হারালে শুধু ফোনের জন্যই কষ্ট লাগবে, ফোনে থাকা তথ্য বা ছবি/ভিডিও’র জন্য না। আর দাম? মাত্র ৭০ ডলার বা ৫,৯৫০ টাকা।

enghillol

Leave a Reply